শনিবার, ০১ অগাস্ট ২০২০, ১২:০৬ অপরাহ্ন

সাকিব তিনে নামুক চাননি তামিম, আস্থা রেখেছিলেন মাশরাফি

স্পোটস ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: মঙ্গলবার, ৫ মে, ২০২০
  • ২৪

ব্যাট হাতে পজিশন পরিবর্তনের পর সাকিব আল হাসান ডানা মেলে উড়তে শুরু করেছিলেন। তাকে ঠেকানোর সাধ্য কার? বিশ্বের বাঘা-বাঘা বোলারদের তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিয়েছেন তিন নম্বরে (ওয়ান ডাউনে) নামার পর থেকেই। এতে কৃতিত্ব অবশ্যই সাকিবের; কিন্তু পর্দার আড়ালের নায়ক অবশ্যই অন্যজন; তিনি মাশরাফি মোর্তজা। সাকিবদের প্রিয় মাশরাফি ভাই।

একটু পরিসংখ্যানের পাতায় চোখ বুলানো যাক। সাকিব তার ২০৬ ম্যাচের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে সবচেয়ে বেশি ব্যাটিং করেছেন পাঁচ নম্বর পজিশনে। ১২৫টি ইনিংসে তিনি খেলতে নেমেছিলেন পাঁচে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ চারে ৩০টি, তৃতীয় সর্বোচ্চ তিনে ২৩টি। এ ছাড়া ছয় নম্বরে ১৪টি ও সাত নম্বরে খেলতে নামেন দুটি ম্যাচে। তার মধ্যে সবচেয়ে সফল তিনে নেমে। মাত্র ২৩ ম্যাচে ৫৮.৮৫ গড়ে করেন ১ হাজার ১৭৭ রান। সেঞ্চুরি দুটি ও হাফসেঞ্চুরি ১১টি। চার-পাঁচের সাকিবকেও ব্যর্থ বলা যাবে না। চারে নেমে সাকিবের গড় ৪১.৬৯ ও পাঁচে ৩৫.৩৩।

পরিসংখ্যান থেকেই বুঝা যায়, তিনের সাকিব সেরা সাকিব। বিশ্বকাপে এ পজিশনেই খেলতে নেমে নিজের জাত চিনিয়েছিলেন। অথচ সাকিব তিনে নামুক চাননি সতীর্থ তামিম ইকবাল; অবশ্য দলের ভালোর জন্য। তার যুক্তি ছিল সাকিব যদি শুরুতেই আউট হয়ে যায় তাহলে শেষ দিকে খেলবে কে?

সোমবার রাতে মাশরাফির সঙ্গে ফেসবুক লাইভ আড্ডায় সাকিবকে নিয়ে তামিম বলেন, ‘সত্যি বলতে আমি চাইনি সাকিব তিনে খেলুক। কেননা শুরুতে যদি আমি আর সাকিব আউট হয়ে যাই তাহলে ঘুরে দাঁড়ানোর মতো ব্যাটসম্যান আমাদের আর থাকবে না। এ কারণে আমি চেয়েছি সাকিব নিচে খেলুক। যদিও সে অনেক আত্মবিশ্বাসী ছিল।‘

তামিম না চাইলেও সাকিবের আত্মবিশ্বাসে আস্থা রেখেছিলেন মাশরাফি মোর্তজা। মাশরাফি বলেন, ‘সাকিবকে তিনে নামাতে আমি রাজি হয়েছিলাম মূলত। কোচও রাজি ছিল না। তুই-ও (তামিম) না। কিন্তু আমি চিন্তা করে দেখলাম বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চে যদি ১-২ ম্যাচে সাকিব রান না পায় তাহলে সবার আগে তারই সবচেয়ে বেশি খারাপ লাগবে।’

অধিনায়কের আস্থা, নিজের দৃঢ় আত্মবিশ্বাস সাকিবের জন্য যেনো কাজ করছিল ম্যাজিকের মতো। ব্যাট করতে নামলেই রান পাচ্ছিলেন। বিশ্বকাপের পর অবশ্য ওয়ানডেতে আর নামতে পারেননি। পরবর্তী সময়ে শ্রীলঙ্কা সিরিজ থেকে নিজেকে বিশ্রামে রেখেছিলেন। গত বছরের অক্টোবর শেষে আইসিসির নিষেধাজ্ঞা আসার আগ পর্যন্ত বাংলাদেশ আর একদিনের ম্যাচ খেলতে নামেননি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15