শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৪৪ পূর্বাহ্ন

মিনু ক্ষমা না চাইলে আ.লীগের অনেক কিছু করার আছে : নানক

উখিয়া সংবাদ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম :: রবিবার, ৭ মার্চ, ২০২১
  • ৪২

রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশে দেওয়া বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনুকে জাতির সামনে ক্ষমা চাওয়ার জন্য বলেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক।

তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘মিনুর বক্তব্য যদি বিএনপি দলীয় বক্তব্য হয় তাহলে আওয়ামী লীগের অনেক কিছু বলার আছে, অনেক কিছু করার আছে। সরকারকে অনুরোধ করব তাকে আইনের আওতায় এনে এ বক্তব্যের উৎস কী তা খতিয়ে দেখা হোক।’

ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে আজ রোববার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু জাদুঘর প্রাঙ্গণে কৃষক লীগ আয়োজিত ‘কৃষক সমাবেশ ও আলোচনা সভায়’ এ কথা বলেন নানক।

‘আজ রাত, কাল আর সকাল নাও হতে পারে। ৭৫ মনে নাই?’, রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশে মিনুর এ বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর এ সদস্য বলেন, ‘মুজিবপ্রেমী জনগণ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বন্দী গণতন্ত্রকে যেভাবে মুক্তি করেছে, তেমনিভাবে ষড়যন্ত্রের আস্তানায় আঘাত হেনে ওদেরকে বঙ্গোপসাগরে নিক্ষেপ করা হবে।’

বিএনপির দিকে ইঙ্গিত করে আওয়ামী লীগ নেতা নানক বলেন, ‘৭৫ সালের ১৫ আগস্ট এর পরে সেই ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে নিষিদ্ধ করা হলো। শুধু নিষিদ্ধই নয়, আমরা যারা মুজিবপ্রেমিক ৭ মার্চের ভাষণ বাঁচানোর চেষ্টা করেছি আমাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। শুধু গ্রেপ্তারেই ক্ষান্ত হয়নি, তারা ৭ মার্চ ভাষণের সকল কিছু মুছে দিতে চেয়েছিল। আজ তারাই ৭ মার্চের ভাষণ পালন করছে। তাদের এসবই দেশ-বিদেশের ষড়যন্ত্রের অংশ।’

শান্তিপ্রিয় বাঙালি কোনো ধরনের ষড়যন্ত্র সফল হতে দেবে না বলেও উল্লেখ করে নানক বলেন, ‘দেশ-বিদেশের ষড়যন্ত্র এবং চক্রান্তকারীরা বসে নেই। যখনই বাংলাদেশ সফল রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ উন্নয়নশীল দেশে উপনীত হয়েছে, তখন অনেকেরই গাত্রদাহ শুরু হয়ে গেছে। যখন বাংলাদেশের মানুষ তাদের মৌলিক অধিকার বুঝে পেয়েছে, তখন সেই বাংলাদেশকে আবার পেছনের দিকে নিয়ে যাওয়ার জন্য ওরা আবার ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। ওদের ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করার জন্য আমাদের যখনই ডাক দেওয়া হবে তখনই যেন লাখ লাখ নেতাকর্মী রাস্তায় নেমে আসে, সে প্রস্তুতি আমাদের থাকতে হবে।’

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম বলেন, ‘বাংলার মানুষ সরকার পতনের তর্জন-গর্জন আর বিশ্বাস করে না। জনগণ বিএনপির ওপর থেকে আস্থা হারিয়েছে। জনগণ দেশের স্থিতিশীল, শান্তি-শৃঙ্খলায় বিশ্বাসী। বিএনপির আন্দোলনের নামে অশুভ তৎপরতার বিরুদ্ধে সোচ্চার জনগণ। তবুও দেশ-বিদেশের যে ধরনের ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে তার জন্য আমাদের সকলকে প্রস্তুত থাকতে হবে।’

আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবুসহ কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। সভার সভাপতিত্ব করেন কৃষক লীগের সভাপতি সমীর চন্দ। সঞ্চালনা করে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15