শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১১:৫৪ পূর্বাহ্ন

এবারও নার্ভাস নাইনটিতে আউট তামিম

স্পোটস ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: শনিবার, ১ মে, ২০২১
  • ৭১

নার্ভাস নাইনটি পেয়ে বসেছে দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবালকে। শ্রীলংকা সফরে যেন সেঞ্চুরি পাওয়া মানা তার জন্য।

পাল্লেকেলেতে গত তিন ইনিংসের দুইবার নব্বইয়ের ঘরে থামলেন দেশসেরা এ ওপেনার।

টেস্ট ক্যারিয়ারের ১১৯ ইনিংসে এ নিয়ে ৩ বার নার্ভাস নাইনটির বলি হলেন তামিম।

প্রথম ইনিংসে শ্রীলংকার ঘোষিত ৪৯৩ রানের জবাবে ওপেনিংয়ে নেমেই চমৎকার ব্যাট করে যাচ্ছিলেন তামিম।

দিন যত গড়াচ্ছিল লিডকে কমিয়ে আনছিলেন অধিনায়ক মুমিনুল হককে সাথী করে।

এক সময় ১৪৮ বল মোকাবিলা করে ৯২ রানে পৌঁছে যান তামিম। তার এই ব্যক্তিগত সংগ্রহে দলের পুঁজি ২ উইকেটে ১৫০ ছাড়ায়।

ভক্তসমর্থকরা সবাই তাকিয়ে তামিমের ব্যাটের দিকে। তাড়া নেই কোনো, বাকি ৮ রান করতে সময় নিক।

তার ক্যারিয়ারের ১০ম সেঞ্চুরির দেখায় অধীর অপেক্ষায় তারা।

কিন্তু বাংলাদেশ ইনিংসের ৪৪তম ওভারে ধাক্কাটা লাগে। ওভারের দ্বিতীয় বলে প্রথম স্লিপে দাঁড়ানো দিমুথ করুনারাত্নের হাতে ধরা পড়েছেন তামিম। আউট হওয়ার আগে ১২ চারের মারে ১৫০ বলে ৯২ রান করেছেন তিনি।

সিরিজে দ্বিতীয়বারের মতো সেঞ্চুরির কাছে গিয়েও খালি হাতেই ফিরতে হলো তাকে।

অবশ্য এর আগে ব্যক্তিগত ৯১ ও ৯২ রানে শর্ট লেগের হাত থেকে জীবন পেয়েছিলেন তামিম।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ইনিংসের ৬০ ওভার শেষে বাংলাদেশ দলের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ২০৯ রান। ফর্মে থাকা অধিনায়ক মুমিনুল হক খেলছেন ৪৩ রানে। চতুর্থ উইকেট জুটিতে তাকে সঙ্গ দিতে নেমেছেন দলের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।

তিনি অপরাজিত আছেন ৩৯ রানে। খেলেছেন ৫৭টি বল।

আজ তামিম-সাইফ জুটি শুরুটা ভালোই করেছিল। কিন্তু হঠাৎই ছন্দপতন হয়। ব্যক্তিগত ২৫ রানের মাথায় প্রবীণ জয়াবিক্রমের বলে ডি সিলভার হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন সাইফ। ৯৮ রানে থামে তামিম-সাইফের উদ্বোধনী পার্টনারশিপ। অভিষিক্ত জয়াবিক্রমের এটাই টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম উইকেট।

সাইফ হাসানের পর বিদায় নেন নাজমুল হোসেন শান্ত। প্রথম টেস্টের সেঞ্চুরিয়ান শান্ত ফিরলেন শূন্য রানে। এক রানের ব্যবধানে টানা দুই উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে গেছে বাংলাদেশ।

গত বৃহস্পতিবার ক্যান্ডির পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হওয়া ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নামে শ্রীলংকা।

দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান দিমুথ করুনারত্নে ও লাহিরু থিরিমান্নের জোড়া শতকে ভর করে ৭ উইকেটে ৪৯৩ রান তুলে শনিবার ম্যাচের তৃতীয় দিনের সকালে ইনিংস ঘোষণা করে স্বাগতিকরা।

ওপেনার লাহিরু থিরিমান্নে সর্বোচ্চ ১৪০ রান করেন। আরেক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান দিমুথ করুনারত্নে করেন ১১৮ রান। এ ছাড়া ওশাদা ফার্নান্দো ৮১ এবং নিরোশান ডিকভেলা ৭৭ রান।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল বোলার ছিলেন তাসকিন আহমেদ। ১২৭ রানে ৪ উইকেট তুলে নেন এই পেসার। এ ছাড়া মেহেদি হাসান মিরাজ, শরিফুল ইসলাম ও তাইজুল ইসলাম একটি করে উইকেট নেন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15