শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৮:৩২ পূর্বাহ্ন

হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দের ঘর পেল বিত্তবানরা

উখিয়া সংবাদ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম :: রবিবার, ৯ মে, ২০২১
  • ৩৬
বরগুনায় মুজিব শতবর্ষে দেয়া হতদরিদ্রদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহায়তার ঘর বিত্তবানদের দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। অনেকের দাবি, টাকা ছাড়া মেলেনি ঘর। জেলা প্রশাসকের কাছে দেয়া হয়েছে এমন লিখিত অভিযোগ। জেলা প্রশাসক জানান, অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত চলছে।
বরগুনার আমতলী উপজেলার হরিদ্রাবাড়িয়া এলাকায় রঙিন টিনের বসতঘর জাকির হোসেনের। ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগের পাশাপাশি রয়েছে সোলার প্যানেলও। তার উঠানেই নির্মাণ হচ্ছে তাকে দেয়া হতদরিদ্রদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহায়তার ঘর। জাকির হোসেন নামের একজন নিজেকে দাবি করেন একজন হতদরিদ্র।
একই এলাকায় ঝুপড়ি ঘরে বাস করতেন ৮৪ বছরের বিধবা বৃদ্ধা চন্দ্রভানু ও তার বিধবা মেয়ে ৬৪ বছরের বৃদ্ধা শাহাবানু। প্রধানমন্ত্রীর ঘর দেয়ার কথা বলে ঝুপড়িটা ভেঙে ফেলতে বলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কম্পিউটার অপারেটর এনামুল হক বাদশা। তার কথা মতো ঝুপড়িটা ভাঙার পরে তাদের কাছে ১৫ হাজার টাকা দাবি করেন বাদশা। সেই টাকা দিতে না পারায় সহায়তার ঘরটি পাননি এই দুই বৃদ্ধা। তাদের যায়গা হয়েছে প্রতিবেশির গোয়ালঘরে এখন। তাদের বাসস্থান।
হতদরিদ্রদের ঘর পাওয়া স্বাবলম্বীদের সংখ্যাও অনেক। একই এলাকায় ঘর পেয়েছেন অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মোতাহার ফকির। যার কৃষি জমি রয়েছে ১০ একর, ঢাকায় বেসরকারি চাকরি করা নাসির ফকিরসহ অনেকেই। এলাকার মানুষের অভিযোগ যারা টাকা দিয়েছে তারাই ঘর পেয়েছে।
এদিকে ঘর বিতরণে এমন অনিয়মের অভিযোগে ইউএনওর বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করেছেন এক যুবলীগের নেতা। অভিযোগ পেয়ে তদন্ত শুরু করেছে জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান।
জেলায় হতদরিদ্রদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহায়তার ৬৪২টি ঘর দেয়া হয়েছে, এর মধ্যে ৩৫০টিই আমতলী উপজেলায়। ইতোমধ্যে অভিযুক্ত কম্পিউটার অপারেটর এনামুল হক বাদশাকে আমতলী উপজেলা পরিষদ থেকে বেতাগী উপজেলা পরিষদে বদলি করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15