মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০১:৫৮ পূর্বাহ্ন

উখিয়ার খাদ্য নিরাপত্তা ও পুষ্টিমান উন্নয়ন প্রকল্পের এপেক্স কমিটি গঠন ও প্রশিক্ষণ প্রদান

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • আপডেট টাইম :: সোমবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯
  • ১৬৪

প্রাকৃতিক দূযোর্গ প্রবণ ও পিছিয়ে পড়া এলাকার হতদরিদ্র জনগোষ্ঠীর খাদ্য নিরাপত্তা ও পুষ্টিমান উন্নয়নে জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচী (ডাব্লিউএফপি) এর সহযোগিতায় এনজিও রিসোর্স ইন্টিগ্রেশন সেন্টার (রিক) হতদরিদ্র স্থানীয়দের জন্য খাদ্য নিরাপত্তা জোরদারকরণের লক্ষ্যে উখিয়া উপজেলার খাদ্য নিরাপত্তা ও পুষ্টিমান উন্নয়ন (ইএফএসএন) প্রকল্পের লক্ষিত জনগোষ্টীকে বিভিন্ন আত্মনির্ভরশীল মহিলা দলে সংগঠিত করে প্রকল্প কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। উক্ত আত্মনির্ভরশীল দল সমূহের টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যে নারী নেতৃত্ব সৃষ্টি, বৃহত্তর পরিসরে সংগঠিতকরণ, আত্মসংযোগ স্থাপন, সরকারী-বেসরকারী সেবাদানকারী সংস্থাসমূহের সাথে কার্যকরী যোগাযোগ স্থাপন, দলীয় সদস্যদের উৎপাদিত পণ্যের বাজারজাতকরণ ও অন্যান্য সেবা নিশ্চিতকরণে ইউনিয়ন ভিত্তিক পাশাপাশি একাধিক দলকে নিয়ে আরও শক্তিশালী সংগঠন “নারী উন্নয়ন সংস্থা বা এপেক্স কমিটি” গঠন কার্যক্রম শুরু করেছে।

সোমবার সকাল ১০ টা হতে বিকাল ৪টা পর্যন্ত মোজাহেরঘোনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রত্নাপালং ইউনিয়নের মোট পনেরোটি আত্মনির্ভরশীল দল-এর ত্রিশ জন প্রতিনিধিদের নিয়ে এপেক্স কমিটির কার্যক্রম বিষয়ক এক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া আন্জুমানপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, পালংখালী ইউনিয়নের ৬ থেকে ৯ নং ওয়ার্ড নিয়ে মোট ঊনিশটি আত্মনির্ভরশীল দল-এর আট্টিশ জন প্রতিনিধিদের নিয়ে এপেক্স কমিটির কার্যক্রম বিষয়ক এক প্রশিক্ষণ ও আহবায়ক কমিটি গঠন হয়।

উখিয়া উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা জনাব কবির আহমেদ রত্নাপালং ইউনিয়নের এ প্রশিক্ষণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। এছাড়া এ প্রশিক্ষণে উপস্থিত ছিলেন ইএফএসএন প্রকল্প সমন্বয়কারী জনাব মো: রুহুল কুদ্দুস, ডাব্লিউএফপি প্রতিনিধি সেনোয়ারা বেগম, প্রকল্পে উপজেলা প্লানিং, মনিটরিং ও বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জনাব মোমিনুর রহমান, ইউনিয়ন ফোকাল জনাব আব্দুল হামিদ। দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শেষে রত্নাপালং ইউনিয়নে “নারী উন্নয়ন সংস্থা বা এপেক্স কমিটি”-্এর একটি আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়।

প্রকল্প সমন্বয়কারী জানান যে, এরই ধারাবাহিকতায় ইএফএসএন প্রকল্পাধীন প্রতিটি ইউনিয়নে ইউনিয়নভিত্তিক কয়েকটি নারী উন্নয়ন সংস্থা গঠন করা হবে। উক্ত সংগঠন দলভূক্ত এলাকাসহ ইউনিয়ন পর্যায়ে আয়বর্ধন কার্যক্রম সহ নারীনেতৃত্ব উন্নয়ন, নারীদের প্রতিনিধিত্বশীল সমাজ গঠন, গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ, সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের সাথে কার্যকরী যোগাযোগ স্থাপন ও উন্নয়নমূলক কার্যক্রম বাস্তবায়নের মাধ্যমে হতদরিদ্র জনগোষ্ঠীর টেকসই উন্নয়নে বলিষ্ঠ ভুমিকা রাখবে। নারীদের দ্বারা পরিচালিত সংগঠনটি হতদরিদ্র নারীদের অরাজনৈতিক, অসাম্প্রদায়িক, উন্নয়নধর্মী ও নারী নেতৃত্ব বিকাশে একটি স্বেচ্ছাসেবী ও স্বাবলম্বী প্রতিষ্ঠান হিসাবে কাজ করবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15