বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০৭:৩১ পূর্বাহ্ন

পরমাণু অস্ত্র বাড়াচ্ছে পাকিস্তান

ডেস্ক রিপোর্ট :
  • আপডেট টাইম :: শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৫৮

পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের ডেরা গাজি খান শহরের পরিত্যক্ত এলাকা। এক সময় প্রশাসনিক কাজকর্ম চলত। এখন সেখানে কী হয় সেটা অজানা। বিশাল ঘেরা কম্পাউন্ডের উত্তর দিকে কড়া পাহারা। ভারতের গোয়েন্দা সূত্র জানিয়েছিল, ডেরা গাজি খানেই গোপনে গড়ে উঠেছে পরমাণু অস্ত্র গবেষণা কেন্দ্র। চুপিসারে সেখানে পরমাণু অস্ত্র বানাচ্ছে পাকিস্তান। সম্প্রতি উপগ্রহের পাঠানো ছবিও তারই প্রমাণ দিয়েছে বলে দাবি ভারতের। তথ্যসূত্র বলছে, গত ৯ মাসে ডেরা গাজি এলাকার ওই বিশাল কম্পাউন্ড অনেকটাই প্রশস্ত হয়েছে। আর ওই কম্পাউন্ডের উত্তর দিকের অংশে টন টন প্লুটোনিয়াম, ইউরেনিয়াম সরবরাহ হচ্ছে। ভারতীয় অনলাইন পত্রিকা দ্য প্রিন্ট এ খবর দিয়েছে।

পাকিস্তান বরাবরই দাবি করে আসছে, ডেরা গাজি খানের ওই এলাকা পরিত্যক্ত। সেখানে পরমাণু অস্ত্র তৈরির কোনো পরিকাঠামোই নেই। ২০০৯ সালে মার্কিন থিংকট্যাংক ইন্সটিটিউট ফর সায়েন্স ইন ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি (আইএসআইএস) জানায়, পাকিস্তানের এ দাবি মিথ্যা। ডেরা গাজিতে লুকিয়ে পরমাণু অস্ত্র তৈরির কাজ চালাচ্ছে পাকিস্তান। গত বছর সিএনএস (জেমস মার্টিন সেন্টার ফর ননপ্রলিফারেশন স্টাডিজ) সূত্রেও একই দাবি করা হয়। সিএনএস জানায়, ডেরা গাজি খান এখন পাকিস্তানের অন্যতম পরমাণু গবেষণা কেন্দ্র হয়ে উঠেছে। ওই কম্পাউন্ডের উত্তরাংশ শুধুই নয়, দক্ষিণাংশও আগের তুলনায় অনেকটাই বিস্তৃত হয়েছে। সেখানে পাহারাও অনেক মজবুত।

উপগ্রহের পাঠানো অক্টোবরের ছবিতে এটা স্পষ্ট ডেরা গাজি আর নিষ্ক্রিয় নয়। বিশাল ঘেরা এলাকায় অনেক ছোট ছোট কারখানা গজিয়ে উঠেছে। কাছাকাছি বাঘাল চরের খনি থেকে টন টন ইউরেনিয়াম এসে পৌঁছাচ্ছে সেখানে। সিএনএসের রিপোর্ট বলছে, ওই কম্পাউন্ডের উত্তর দিকের কারখানাগুলোতে ইউরেনিয়াম থেকে ইউরেনিয়াম ডাই-অক্সাইড, ইউরেনিয়াম হেক্সাফ্লুওরাইড (ইউএফ৬) তৈরি হচ্ছে। পরে সেগুলোকে চুল্লিতে পাঠিয়ে পরমাণু অস্ত্রের উপযুক্ত আইসোটোপ তৈরি করা হয়। ডেরা গাজিতে ইউরেনিয়াম কেন পাঠানো হচ্ছে তার যথোপযুক্ত কোনো জবাব পাকিস্তান দিতে পারেনি। সিএনএসের রিপোর্ট আরও বলছে, বেলুচিস্তান ও সিন্ধু প্রদেশের পাহাড়ি এলাকার বহু গোপন সুড়ঙ্গ অস্ত্র মজুদের বড় ঘাঁটি হয়ে উঠেছে। অর্থাৎ একই সঙ্গে অস্ত্র তৈরি এবং অস্ত্র মজুদের কাজ চলছে। সংরক্ষণ করে রাখা হচ্ছে খনি থেকে আসা কাঁচামাল। গত কয়েক মাসে নতুন চারটি পুকুর খনন করা হয়েছে ডেরা গাজির কম্পাউন্ডে। আগের পরিত্যক্ত পুকুরগুলো ভরে উঠেছে কোনো রাসায়নিক তরলে। ৭০-৯০ শতাংশ বেড়েছে ইউরেনিয়ামের ক্রিয়াশীলতা। জুনের উপগ্রহ চিত্রে দেখা গেছে, কয়েকটি গাড়ি নিয়মিত আনাগোনা করে কম্পাউন্ডের ভেতরে। গত ৪ মাসে পরিত্যক্ত বর্জ্য জমা করার কয়েকটি জায়গা তৈরি হয়েছে। কম্পাউন্ডের পূর্বে ও পশ্চিমে বড় দেয়াল তুলে ঘিরে দেয়া হয়েছে।

১০০ কোটি মার্কিন ডলারের অস্ত্র কিনছে ভারত : যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে ১০০ কোটি মার্কিন ডলারের অস্ত্র কিনছে ভারত। বুধবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ভারতকে অস্ত্র বিক্রির সিদ্ধান্তের চূড়ান্ত ঘোষণা দেন। জানা গেছে, ভারতকে ১০০ কোটি মার্কিন ডলারে নাভাল গান বিক্রির প্রস্তাব অনুমোদন করেছেন ট্রাম্প। মার্কিন কংগ্রেসকে এ বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের অনড় মনোভাবের কথা অবগত করেছে ট্রাম্প প্রশাসন। যুক্তরাষ্ট্রের এ নাভাল গান (নৌ বন্দুক) শত্রুপক্ষের যুদ্ধজাহাজ থেকে আক্রমণ প্রতিহত করতে সক্ষম। শত্রুপক্ষের অ্যান্টি-এয়ারক্র্যাফট থেকে হামলা বা তীরে বোমাবর্ষণ মোকাবেলায়ও সক্ষম মার্কিন এ নৌ বন্দুক।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15