বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৫:১০ অপরাহ্ন

মুখ পুড়ল বিজেপির

ডেস্ক রিপোর্ট :
  • আপডেট টাইম :: বুধবার, ২৭ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৮১

তিনি এনসিপিতে ছিলেন। এখনও সেই দলেই রয়েছেন। এমনটাই জানালেন মহারাষ্ট্র নির্বাচনে মহানাটকের অন্যতম চরিত্র অজিত পওয়ার। বৃহস্পতিবার উদ্ধব ঠাকরের শপথের আগে বুধবার সকালে বিশেষ অধিবেশনে শপথ নেন মহারাষ্ট্রের নবনির্বাচিত বিধায়করা। সেখানেই এমন কথা জানিয়েছেন শরদ পাওয়ারের ভাইপো অজিত।

বুধবারের অনুষ্ঠানে এনসিপির বিধায়ক হিসাবে শপথ নেন অজিত পওয়ার। তাঁকে নিয়েই গত কয়েকদিন ধরে চলছে নাটক। সেই অজিত পাওয়ারকে আলিঙ্গন করে বিধানসভায় বরণ করে নেন শরদ পওয়ারের কন্যা সুপ্রিয়া সুলে।

তারপর তিনি বলেন, এনসিপি এখনও আমাকে বরখাস্ত করেনি। এখনও দলেই রয়েছি।

মহা নাটকের পতন হতেই এবার দোষারোপের পালা শুরু হল বিজেপির অন্দরে। গোটা পরিস্থিতির জন্য দেবেন্দ্র ফডণবীসের অদূরদর্শিতাকেই দায়ী করলেন দলের নেতা একনাথ খাডসে।

তাঁর মতে, পাহাড় প্রমাণ দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে যে অজিত পওয়ারের বিরুদ্ধে, কোনও পরিস্থিতিতেই তাঁর সঙ্গে হাত মেলানো উচিত হয়নি ফডণবীসের।

১৯৯৯ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত মহারাষ্ট্রের সেচমন্ত্রী ছিলেন অজিত পওয়ার। সেইসময় ৩৮টি প্রকল্পের ছাড়পত্র দেন তিনি। কিন্তু অভিযোগ ওঠে, ওই প্রকল্পগুলির জন্য বিদর্ভ ইরিগেশন ডেভলপমেন্ট কর্পোরেশনের ছাড়পত্র তো নেওয়াই হয়নি, উল্টে দরপত্রের নিয়মকানুনেও ইচ্ছামতো পরিবর্তন ঘটানো হয়। অথচ সেই বাবদ প্রায় ৭০ হাজার কোটি  টাকা খরচ হয়ে গেলেও, ১০ বছরে এক শতাংশ জমিও সেচের আওতায় আসেনি।

কিন্তু গত সপ্তাহে এনসিপি ভেঙে দেবেন্দ্র ফড়ণবীসের সঙ্গে হাত মেলানোর দু’দিন পরেই উপ মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেওয়া অজিতকে সেই সংক্রান্ত ন’টি মামলা থেকে ছাড়় দেওয়া হয়। সরকার গড়তে বিজেপিকে সাহায্য করেছেন বলেই অজিতকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে বলে সেইসময় দাবি করে শিবসেনা-এসিপি-কংগ্রেস জোট।

এ নিয়ে এখন বেশ চাপে বিজেপি। সমালোচনা চলছে ভারতজুড়ে। কারণ এই প্রকল্পের ব্যর্থতা এবং গোটা প্রক্রিয়ায় অনিয়মের জন্য শুরু থেকেই অজিত পওয়ারের বিরুদ্ধে আঙুল তুলে আসছিল বিজেপি ও শিবসেনা।

এ ব্যাপারে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ একটি টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠানে বলেন, সমর্থনের চিঠি নিয়ে অজিত পাওয়ারই আমাদের কাছে এসেছিলেন। পরিষদীয় দলের নেতা হওয়ায়, ওঁকে বিশ্বাস করেই এগিয়েছিলাম।

সেচ দুর্নীতি কাণ্ডে অজিত পাওয়ারকে অব্যাহতি দেওয়ার অভিযোগও খারিজ করেন তিনি। শাহের দাবি, যে নটি মামলা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে, তার মধ্যে একটির সঙ্গেও অজিত পওয়ারের যোগ ছিল না।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15