শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন

বিএনপির বিক্ষোভে পুলিশের বাধা গ্রেপ্তার

ডেস্ক রিপোর্ট :
  • আপডেট টাইম :: সোমবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ৯৩

কারাবন্দি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে পূর্বঘোষণা অনুযায়ী গতকাল রবিবার ঢাকাসহ সারাদেশে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিএনপি। এর মধ্যে সিরাজগঞ্জ, ফরিদপুর, ঢাকা মহানগরের কোতোয়ালি ও শাহবাগে শান্তিপূর্ণ মিছিলে হামলা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিএনপি। সিরাজগঞ্জ শহরে বিএনপির মিছিলের ওপর আওয়ামী লীগের সশস্ত্র ক্যাডাররা হামলা করে। এ হামলায় জেলা সহসাংগঠনিক সম্পাদক শামীম গুরুতর আহত হয়েছেন। পুলিশের সহযোগিতায় সিরাজগঞ্জে জেলা কার্যালয়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বিক্ষোভ কর্মসূচি চলাকালে বিভিন্ন স্থান থেকে হামলা চালিয়ে শাহবাগ থানা বিএনপির নেতা মো. রফিক,

মো. আসিফ, মইন, হৃদয়সহ পাঁচজন, মো. লিমন, রহিমসহ পুলিশ ১০-১২ জনকে গ্রেপ্তার করে এবং পুলিশি হামলায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীসহ ১২-১৩ জন আহত হন।

শাহবাগ থানা বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা বিএনপি নেতা মো. জাহিদ হোসেন নওয়াব এবং রফিকুল ইসলাম স্বপনের নেতৃত্বে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালের সামনে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। অমর একুশে হলের সামনে গেলে পুলিশ হামলা চালিয়ে আ. রশিদ, সুমন, শাকিল, সুজনসহ ৮-১০ কে আহত করে এবং মো. রফিক নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়।

চকবাজার থানা বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবুলর নেতৃত্বে উর্দুু রোড থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে নুরফাতে লেন হয়ে লালবাগ চৌরাস্তা গিয়ে শেষ হয়।

কোতোয়ালি থানা বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা বিএনপি সভাপতি হায়দার আলী বাবলা ও সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুর আজিমের নেতৃত্বে বাবুবাজার ব্রিজের সামনে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ইসলামপুরে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে পুলিশ হামলা চালিয়ে মো. লিমন ও রহিম নামে দুজনকে গ্রেপ্তার করে। খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মিছিল হয়েছে ঢাকা মহানগর দক্ষিণের কদমতলী, শ্যামপুর যাত্রাবাড়ী, নিউমার্কেট, কামরাঙ্গীরচর, ডেমরা, খিলগাঁও, রমনা, মতিঝিল, গে ারিয়া, বংশাল, লালবাগ, শাহজাহানপুর, মুগদা, কলাবাগান, ধানমি , পল্টন, সবুজবাগ, ওয়ারী ও সূত্রাপুর থানা এলাকায়। খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ঢাকা মহানগর উত্তরের বনানী, বাড্ডা, পল্লবী, রূপনগর, খিলক্ষেত, উত্তরখান, মিরপুর, রামপুরা, তুরাগ, বিমানবন্দর, উত্তরা পূর্ব, মোহাম্মদপুর, আদাবর, দক্ষিণখান, ভাটারা, উত্তরা পশ্চিম, শাহআলী থানা এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেছেন নেতাকর্মী।

আমাদের প্রতিনিধিরা জানান, রাজশাহী মহানগর ও জেলা বিএনপি বেলা ১১টার দিকে নগরীর মালোপাড়া বিএনপি কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ হয়। জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সাঈদ চাঁদের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক রাসিক মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, মহানগর সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন, বিএনপি নেতা শফিউল আলম বুলু, সৈয়দ মহসিন আলী, শওকত আলী, আসলাম সরকার, ওয়ালিউল হক রানা, সিরাজুল ইসলাম, আনোয়ার হোসেন উজ্জল প্রমুখ।

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বগুড়ায় বেলা ১১টা থেকে বিএনপির নেতাকর্মীরা খ- খ- মিছিল নিয়ে দলীয় কার্যালয়ে আসতে শুরু করেন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে একটি মিছিল নবাববাড়ি সড়ক হয়ে দলীয় কার্যালয়ের দিকে যাচ্ছিল। এ সময় সদর পুলিশ ফাঁড়ির সামনে তাদের মিছিলে বাধা দিলে পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতাকর্মীদের ধাক্কাধাক্কি শুরু হয়। এ সময় বগুড়া সদর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ বলেন, তিনজনকে আটক করা হয়েছে। সিনিয়র অফিসারদের সঙ্গে আলোচনা করে তাদের ছেড়ে দেওয়া হবে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উত্তেজনা দেখা দিলে পুলিশ নবাববাড়ি সড়কে ফতেহ আলী মোড় এবং ডায়াবেটিক হাসপাতালের সামনে কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে দুই পাশে বিপুলসংখ্যক পুলিশ অবস্থান নেয়। পুলিশবেষ্টনীর মধ্যেই বিএনপির সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে দুপুর ১২টায় জামালপুর শহরের দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে জেলা বিএনপি। এতে জেলা বিএনপির সহসভাপতি আমজাদ হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা শাহ মোহাম্মদ ওয়ারেছ আলী মামুন, জেলার নেতা আনিছুর রহমান বিপ্লব, শহিদুল হক খান দুলাল, খন্দকার আহসানুজ্জামান রুমেল, লোকমান আহমেদ লোটন প্রমুখ। ওয়ারেছ আলী মামুন বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তি দেওয়া না হলে জামালপুর অচল করে দেওয়ার আলটিমেটাম দেন বক্তারা।

খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে গাইবান্ধা জেলা বিএনপির উদ্যোগে দলীয় কার্যালয়ের সামনে এক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাহামুদুন্নবী টিটুলের সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক আনিছুর রহমান নাদিমের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মান্নান সরকার, শহীদুজ্জামান শহীদ, ইলিয়াস হোসেন, জাহেদুন্নবী তিমু, আবদুল হাই, বিপুল কুমার দাস প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15