সোমবার, ২৩ নভেম্বর ২০২০, ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন

নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে অগ্নিগর্ভ আসাম-ত্রিপুরা

ডেস্ক রিপোর্ট :
  • আপডেট টাইম :: বুধবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ৭৭
আসামের তিনসুকিয়ায় শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

আসাম ও ত্রিপুরার পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ করে তুলে রাজ্যসভাতেও পাস হলো বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধন বিল। গত সোমবার বিলটি পাস হয়েছিল লোকসভায়, আজ বুধবার ১১৭-৯২ ভোটে পাস হলো রাজ্যসভায়। এনডিএ শরিক শিবসেনা লোকসভায় বিলের পক্ষে ভোট দিলেও রাজ্যসভায় তারা ওয়াকআউট করে।

অগ্নিগর্ভ আসাম ও ত্রিপুরায় একাধিক বাস ও গাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ত্রিপুরায় গুলি চালিয়েছে পুলিশ। গুয়াহাটিতে জারি হয়েছে কার্ফু। বহু জায়গায় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইন্টারনেট ও মোবাইল পরিষেবা।

দুই রাজ্যেই নেমেছে আধাসেনা।

রাজ্যসভায় যখন শাসক ও বিরোধী দলের বাগযুদ্ধ চলছে সিএবি নিয়ে, তখনও দিনভর প্রতিবাদ বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠল উত্তর-পূর্বের দুই রাজ্য আসাম ও ত্রিপুরা। পরিস্থিতি সামাল দিতে দুই রাজ্যেই আধাসেনা নামানো হয়েছে। ত্রিপুরায় নামানো হয়েছে বিএসএফ আসাম রাইফেলস-এর সেনাদের।

প্রশাসন সূত্রে খবর, আধাসেনা মোতায়েন করা হয়েছে ত্রিপুরার কাঞ্চনপুর ও মনু এলাকায়।

আসামের বঙ্গাইগাঁও ও ডিব্রুগড়েও আধাসেনা মোতায়েন করা হয়েছে। উত্তর ত্রিপুরা জেলার কাঞ্চনপুরে চলা হরতাল সমর্থকদের হঠাতে পুলিশকে শূন্যে ১০ রাউন্ড গুলি ছুড়তে হয় বলে জানান এসডিএম অভেদানন্দ বৈদ্য।

বিলের প্রতিবাদে গুয়াহাটিতেও পথে নেমে পড়েছেন কলেজের ছাত্রছাত্রীরা। প্রতিবাদে শামিল হয়েছেন গুয়াহাটি মেডিকেল কলেজ ও আসাম ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ-সহ বেশির ভাগ কলেজের ছাত্রছাত্রীরা। দিসপুরে যাওয়ার পথে মূল সড়ক গুয়াহাটি-শিলং রোড অবরোধ করেন তারা। অবরোধ ওঠাতে কাঁদানে গ্যাস ছুড়েছে পুলিশ। ডিব্রুগড়ের চাউলধোওয়ায় পুলিশের লাঠিতে গুরুতর আহত হয়েছে অনেক ছাত্র। বিক্ষোভের জেরে ডিব্রুগড় ও গুয়াহাটির বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে যাবতীয় পরীক্ষা অর্নির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখা হয়েছে। রাতের দিকে একাধিক গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা।

উত্তর ত্রিপুরার ধলাই জেলার মনুঘাট এবং ৮২ মাইল বাজারে একের পর এক দোকানে আগুন লাগায় বিক্ষোভকারীরা। ভাঙচুর করে লুটপাট চালানো হয়। তাদের আক্রমণে কৃপাসিন্ধু চক্রবর্তী নামে এক ব্যবসায়ী আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। পুলিশ শতাধিক অবরোধকারীকে গ্রেফতার করেছে। গুজব ছড়ানো বন্ধ করতে ত্রিপুরায় মোবাইল, ইন্টারনেট এবং এসএমএস পরিষেবা আগামী ৪৮ ঘণ্টার জন্য বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে রাজ্য সরকার। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15