রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৮:১০ অপরাহ্ন

আইপিএল : কিশোর ক্রিকেটারের মূল্য প্রায় তিন কোটি টাকা!

স্পোর্টস ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম :: বৃহস্পতিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ৭৭

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলীর শহরে আজ বসেছে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের সবচেয়ে জমজমাট আসর আইপিএলের নিলাম। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে উত্তাল কলকাতায় নিলাম নিয়ে উৎকণ্ঠা থাকলেও শেষ পর্যন্ত এই শহরেই চলছে নিলাম। শহরের একটি পাঁচতারকা হোটেলে আটটি ফ্র্যাঞ্চাইজির নিজেদের পছন্দের খেলোয়াড় কেনার জন্য লড়াই শুরু হয়েছে বিকেল ৪টা থেকে।

প্রায় তিন কোটিতে রাজস্থানে যশস্বী : ১৭ বছর বয়সী ক্রিকেটার যশস্বী জয়সওয়ালকে ২.৪০ কোটি রুপি দিয়ে কিনে নিয়েছে রাজস্থান রয়্যালস। বাংলাদশি মুদ্রায় প্রায় তিন কোটি টাকা। আইপিএলের এই আসরে যশস্বীই সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড়।

১৭ গুণ বেশি দামে পাঞ্জাবে কটরেল : তার ভিত্তি মূল্য মাত্র ৫০ লাখ রুপি। কিন্তু তাকে ভিত্তিমূল্য থেকে ১৭ গুণ বেশি দামে অর্থ্যাৎ আট কোটি ৫০ লাখ রুপিতে কিনে নিয়েছে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ১০ কোটি ১৬ লাখ টাকা।

দল পেলেন অ্যালেক্স কারে :  একমাত্র উইকেটরক্ষক হিসেবে দল পেয়েছেন অ্যালেক্স কারে। তাকে দুই কোটি চার লাখ রুপি খরচ করে কিনে নিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় তিন কোটি টাকা।

মুশফিককে কেনেনি কোনো দল : বাংলাদেশ দলের অন্যতম সদস্য উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহীম অবিক্রীত থেকে গেছেন আইপিএলে। তার প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করেনি কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি।

সাড়ে ছয় কোটিতে চেন্নাইয়ে কারেন : চেন্নাই সুপার কিংস নিলাম থেকে প্রথম খেলয়াড় হিসেবে স্যাম কারেনকে দলে ভিড়িয়েছে সাড়ে পাঁচ কোটি রুপি খরচ করে। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় পায় সাড়ে ছয় কোটি টাকা।

১২ কোটিতে ব্যাঙ্গালোরে ক্রিস মরিস  : মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের সঙ্গে সুদ্ধ করে ক্রিস মরিসকে ১০ লাখ রুপি খরচ করে দলে ভিড়িয়েছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। যা বাংলাদেশি মুদ্রয় প্রায় ১২ কোটি রুপি।

সাড়ে ১৮ কোটিতে কলকাতায় প্যাট কমিন্স : রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ও দিল্লি ক্যাপিটালসের সঙ্গে রীতিমত যুদ্ধ করে ১৫ কোটি ৫০ লাখ রুপি খরচ করে  প্যাট কমিন্সকে দলে ভিড়িয়েছে কলকাতা নাইটরাইডার্স। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় সাড়ে ১৮ কোটি থাকা।

ছয় কোটিতে  কলকাতায় মর্গান : ইংল্যান্ড অধিনায়ক ইয়ন মর্গানকে পাঁচ কোটি ২৫ লাখ রুপি খরচ করে কিনে নিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৬ কোটি টাকারও বেশি।

সাড়ে তিন কোটিতে রাজস্থানে উথাপ্পা : রবিন উথাপ্পা তিন কোটি রুপিতে রাজস্থান রয়্যালসে। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় সাড়ে তিন কোটি টাকারও বেশি।  (ভিত্তিমূল্য ১.৫০ কোটি)।

১২ কোটিতে পাঞ্জাবে ম্যাক্সওয়েল : অনেক দরকষাকষির পর ১০ কোটি ৭৫ লাখ রুপিতে পাঞ্জাব কিনে নিয়েছে ম্যাক্সওয়েলকে। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ১২ কোটি ৮৪ লাখ টাকা।

অবিক্রীত যারা  : নিলামে কেউ আগ্রহ দেখায়নি  ইউসুফ পাঠান ও স্টেইনের মত তারকা ক্রিকেটারের ওপর। এই নিলামে দল পাননি পূজারা, স্টুয়ার্ট বিনি, টিম সাউদি, আন্ডু টাই, ডেল স্টেইন, মোহিত শর্মা, শাই হোপ, কুশল পেরেরা, নামান ওঝা, হেনরি ক্লাসেন, কলিন ডি গ্রান্ডহোম।

মোট ৩৩২ জন ক্রিকেটারের নাম নিলামে আছে। তার মধ্যে ১৮৬ জন ভারতীয়, ১৪৩ জন বিদেশি ও তিন সহযোগী দেশের সদস্য। সর্বোচ্চ দুই কোটি রুপি। ভিত্তি মূল্য ধরা হয়েছে সাতজন বিদেশির। একমাত্র রবিন উথাপ্পার মূল্য দেড় কোটি রুপি। এ ছাড়া পিজুস চাওলা, ইউসুপ পাঠান, যাদব উদানকাটের মূল্য ধরা হয়েছে এক কোটি রুপি।

নিলামে চাইলেই টাকার বস্তা নিয়ে ছুটতে পারবে না ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। আটটি দল মোট ৭৯ জন খেলোয়াড় কিনতে পারবে। কোন দলের কাছে কত টাকা আছে তা তুলে ধরা হলো…

চেন্নাই সুপার কিংস :চেন্নাই সুপার কিংসের হাতে আছে ১৪.৬০ কোটি রুপি। তারা দেশি খেলোয়াড় কিনতে পারবে পাঁচজন ও বিদেশি দুইজন।

দিল্লি ক্যাপিটালস : চেন্নাই সুপার কিংসের প্রায় দিগুণ ২৭.৮৫ কোটি রুপি রয়েছে দিল্লির কাছে। ফ্র্যাঞ্চাইজিটি দেশি খেলোয়াড় কিনতে পারবে ১১ জন ও বিদেশি পাঁচ জন।

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব : সবচেয়ে বেশি রুপি আছে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের কাছে। ৪২.৭০ কোটি রুপি আছে দলটির কাছে। পাঞ্জাব ৯ জন দেশি ও চারজন বিদেশি খেলোয়াড় কিনতে পারবে।

কলকাতা নাইট রাইডার্স :পাঞ্জাবের পরেই সবচেয়ে বেশি ৩৫.৬৫ রুপি আছে কলকাতার কাছে। ১১ জন দেশি ও চারজন বিদেশি খেলোয়াড় কিনতে পারবে শাহরুখের দল।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স : সবচেয়ে কম রুপি আছে মুম্বাইয়ের কাছে। দলটি খেলোয়াড় কেনার জন্য খরচ করতে পারবে ১৩.০৫ কোটি রুপি। ৭ জন দেশি ও দুইজন বিদেশি খেলোয়াড় কিনতে পারবে দলটি।

রাজস্থান রয়্যালস : রাজস্থান রয়্যালসের হাতে আছে ২৮.৯০ কোটি রুপি। ১১ জন দেশি ও চারজন বিদেশি খেলোয়াড় কিনতে পারবে দলটি।

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু : মোট ২৭.৯০ কোটি রুপি রয়েছে রয়্যাল চযালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর হাতে। এই টাকার মধ্যে ১২ জন দেশি ও ৬ জন বিদেশি খেলোয়াড় কিনতে পারবে আরসিবি।

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ : ফ্র্যাঞ্চাইজিটির হাতে ১৭ কোটি রুপি রয়েছে। সাতজন দেশি ও দুজন বিদেশি খেলোয়াড় নিতে পারবে দলটি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15