রবিবার, ২২ নভেম্বর ২০২০, ১০:১৮ অপরাহ্ন

মিয়ানমারের বর্বরতা বন্ধে ফের জাতিসংঘে প্রস্তাব পাশ

ডেস্ক রিপোর্ট :
  • আপডেট টাইম :: শনিবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ৭৫
শান্তিতে নোবেলজয়ী মিয়ানমার নেত্রী অং সান সু চি

মিয়ানমারে পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য রাখাইনে বসবাসরত রোহিঙ্গা মুসলিম ও অন্যান্য ধর্মীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানবাধিকার পরিস্থিতি শিরোনামে একটি প্রস্তাব পাশ হয়েছে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে। শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর) পাশ হওয়া এই প্রস্তাবে, ২০১৭ সালের আগস্টে দেশটিতে মুসলিম সম্প্রদায় নিধনে বর্বরোচিত আচরণের কথাও উল্লেখ করা হয়।

এটি ছিল জাতিসংঘের ৭৪তম সাধারণ পরিষদের ৫২তম বৈঠক। এখানে রেজ্যুলেশনের পক্ষে ভোট দেয় বিশ্বের ১৩৪টি রাষ্ট্র, আর বিপক্ষে ছিল মাত্র ৯টি। এবার ভোট প্রদান থেকে বিরত ছিল ২৮ দেশ।

বিশ্লেষকদের মতে, মিয়ানমার সরকারের বর্বরতা বন্ধ এবং বাস্তুভিটা ত্যাগে বাধ্য হওয়া রোহিঙ্গাদের সসম্মান ও নিরাপদে নিজ বসতভিটায় ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের কাছে লাগাতার তদবির করছিল বাংলাদেশ। যার প্রেক্ষিতে যৌথভাবে এই রেজ্যুলেশনটি উত্থাপন করেছিল ওআইসি এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।

এর আগে গত ১৪ নভেম্বর জাতিসংঘের থার্ড কমিটিতে অধিকাংশ সদস্য-রাষ্ট্রের সমর্থনে রেজ্যুলেশনটি পাশ হয়। পঞ্চম কমিটিতে জাতিসংঘের বাজেট নিয়ে সমঝোতার সময়েই মিয়ানমার সরকারের ওপর চাপ প্রয়োগের অভিপ্রায়ে রেজ্যুলেশন উপস্থাপন করা হয়েছিল। এর মধ্য দিয়ে রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধানে আন্তর্জাতিক মহলের সার্বিক সমর্থনের ব্যাপারটি পুনরায় দৃশ্যমান হলো বলে মনে করছেন কূটনীতিকরা।

উল্লেখ্য, মিয়ানমারে জাতিগত নিধন, হত্যা ও নির্যাতনের মুখে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট থেকে পরবর্তী তিন মাসে বাংলাদেশ সীমান্তে আশ্রয় নেয় ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা। এদের মধ্যে প্রায় ৫০ হাজার রোহিঙ্গা নারী ছিলেন গর্ভবতী। এর আগে ১৯৬৮ সাল থেকে বাংলাদেশে আশ্রিত রয়েছে আরও অন্তত চার লাখ রোহিঙ্গা। নতুন করে অনুপ্রবেশের পর সাম্প্রতিক সময়ে এখানে জন্ম নিয়েছে আরও প্রায় কয়েক লক্ষ শিশু।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15