সোমবার, ২৩ নভেম্বর ২০২০, ১০:৪৭ পূর্বাহ্ন

টেকনাফে মাটির ঘরেই অন্যরকম সম্রাজ্য !

ডেস্ক রিপোর্ট :
  • আপডেট টাইম :: শুক্রবার, ৩ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৪৩

পেশায় তিনি ইজিবাইক চালক। নাম সৈয়দ নূর (৩৬)। বসবাস কক্সবাজারের টেকনাফ থানার হ্নীলা ইউনিয়নের রঙ্গিখালী গাজিপাড়ায়। মাটির ঘরে রোদ বৃষ্টি সামাল দিতে পলিথিন ঝুলিয়ে রাখা। সেই সৈয়দ নূর ইংরেজী নববর্ষে স্ত্রীকে দিয়েছেন ২২ ভরি ওজনের স্বর্ণের হার। যার দাম পড়েছে ১৪ লাখ টাকা। স্ত্রী প্রেমে ‘শাহজাহান’ বনে যাওয়া এ হতদরিদ্রের আসল চেহারা ধরা পড়েছে বৃহস্পতিবার পুলিশি অভিযানে। বিশাল ইয়াবা কারবারের হোতা তিনি। আলোচিত মাটির ঘরেই মিলেছে ১০ হাজার ইয়াবা।

সূত্র জানায়, দুই সপ্তাহ আগে টেকনাফে ইয়াবার বড় কারবারি নুর হাফেজ বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন। সে সময় পাওয়া কিছু তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশের নজর পড়ে স্থানীয় ইজিবাইক চালক সৈয়দ নুরের দিকে। তবে তিনি বড় মাপের ইয়াবা কারবারি এমন ধারনা মেলেনি। সৈয়দ নুর বসবাস করেন একটি ছোট্ট মাটির ভাঙ্গাচোরা ঘরে। কথিত শ্রমজীবির সেই মাটির ঘরেই সন্দেহবশত পুলিশ হানা দেয় বৃহস্পতিবার। ১০ হাজার ইয়াবার একটি বড় চালানসহ সৈয়দ নুরকে হাতেনাতে আটক করা হয়। এরপর ঘরের মালামাল তল্লাশি করতে গিয়ে পুলিশের নজরে আসে আকর্ষণীয় একটি স্বর্ণের হার।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে সৈয়দ নুর জানান, ইংরেজী নববর্ষে স্ত্রীকে উপহার দিয়েছেন ২২ ভরি ওজনের স্বর্ণের হারটি। ঘরেই পাওয়া যায় স্বর্ণালঙ্কার কেনার রশিদ। মূল্যমান দেখা যায় ১৪ লাখ টাকা। পুলিশ টাকার রশিদসহ হারটি জব্দ করেছে।

টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, ‘সীমান্তে গত দুই বছর ধরে ইয়াবা আটকের অভিযান চালাচ্ছি। এবারের ঘটনা পুরোই আলাদা। আটক ইয়াবা কারবারি সৈয়দ নূরকে সন্দেহ করার মতো কোন উপাদানই ছিল না। দিনের আলোয় তিনি একজন ইজিবাইক চালক। বসবাস জীর্ন ঘরে। প্রত্যন্ত রঙ্গিখালী গাজিপাড়ার বাসিন্দা সৈয়দ নুর সম্পর্কে তথ্য মেলে ইয়াবা ডন নুর হাফেজ বন্দুকযুদ্ধে নিহত হবার পর পরই। এখন নিশ্চিত হওয়া গেছে নুর একজন বড় মাপের ইয়াবা কারবারি।

 

সুত্র- কালেরকন্ঠ

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15