মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৮:১৭ অপরাহ্ন

অস্ত্র হাতে যুক্তরাষ্ট্রকে সোলাইমানি কন্যার হুঁশিয়ারি

ডেস্ক রিপোর্ট :
  • আপডেট টাইম :: শনিবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৫২

যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে আজীবন সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মার্কিন হামলায় নিহত ইরানি জেনারেল কাসেম সোলাইমানির মেয়ে জেইনাব। শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) বাবার জন্মস্থান কেরমান শহরে জুমার নামাজের খুতবার আগে দেওয়া ভাষণে তিনি হুমকিটি দেন।

ইরানি বার্তা সংস্থা ‘পার্স টুডে’ জানায়, প্রথা অনুযায়ী এ সময় তার বাম হাতে অস্ত্র ছিল। ইসলামি প্রজাতন্ত্রে জুমার নামাজের ভাষণ ও খুতবার সময় পাশে একটি রাইফেল রাখা হয়। সাধারণত বক্তব্য দেওয়ার সময় বক্তা এমনকি খতিব নিজেও রাইফেলটি এক হাতে ধরে রাখেন।

জেইনাব সোলাইমানি নিজের বাবার প্রতি কোটি মানুষের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা প্রদর্শনের জন্য সকলের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এমনকি অতিরিক্ত ভিড়ের চাপে পদদলিত হয়ে যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের পরিবারের প্রতিও গভীর শোক ও সমবেদনা জানান।

সোলাইমানি কন্যা বলেন, আমার বাবাকে হত্যা করে যুক্তরাষ্ট্র সবচেয়ে বড় বোকামি করেছে। কেননা এর ফলে আমাদের ইসলামি প্রজাতন্ত্র ও ইসলামি প্রতিরোধ সংগ্রাম দুর্বল হয়নি বরং গোটা বিশ্বের স্বাধীনচেতা যুব সমাজ জেগে উঠেছে। এতে আমাদের ঐক্য আরও জোরদার হয়েছে।

জেইনাব আরও বলেন, আমার বাবা গোটা বিশ্বকে আবারও দেখিয়ে গেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় শয়তান। আল্লাহর শপথ মহাশয়তান আমেরিকার বিরুদ্ধে আমাদের সংগ্রাম চলবে। এক সোলাইমানির শাহাদাতের পর হাজারো সোলাইমানি প্রতিশোধ নিতে হোয়াইট হাউসের দিকে যেতে প্রস্তুত।

এর আগে শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) ভোরে ইরাকের বাগদাদ শহরের বিমানবন্দরে মার্কিন বিমান হামলায় ইরানি জেনারেল কাসেম সোলাইমানি নিহত হন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্দেশে চালানো সেই অভিযানে তেহরান সমর্থিত পপুলার মবিলাইজেশন ফোর্সেসের (পিএমএফ) উপপ্রধান আবু মাহদি আল-মুহান্দিসসহ বাহিনীর বেশ কয়েকজন সদস্য প্রাণ হারান।

সোলাইমানি নিহত হওয়ার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে সর্বোচ্চ উত্তেজনা বিরাজ করছে। কয়েকদিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রকে পাল্টা হামলার হুমকি দিয়ে আসছিল ইরান। অবশেষে বুধবার (৮ জানুয়ারি) ভোর রাতে সেই হামলা চালায় তারা। এরপর ধারণা করা হচ্ছিল, ইরানের বিরুদ্ধে কঠিন কোনো পদক্ষেপই হয়তো নেবেন ট্রাম্প। কিন্তু বাস্তবে তা হয়নি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ইরানকে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15