বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১:৩১ পূর্বাহ্ন

পার্বত্যাঞ্চলে সন্ত্রাসীদের সামনে ভয়ংকর দিন আসছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

উখিয়া সংবাদ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম :: বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৯
  • ৫৮

পার্বত্যাঞ্চলের সন্ত্রাসীদের জন্য সামনে ভয়ংকর দিন আসতেছে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। তিনি বলেছেন, যারা সন্ত্রাসী করছে, চাঁদাবাজি করছে, খুনখারাবি রক্তপাত করছে, তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। এ সব সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের চিহ্নিত করে অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে। আর যারা এসব সশস্ত্র সন্ত্রাসী কার্মকাণ্ডে মদত দিচ্ছে তারাও রেহাই পাবে না।

তাদেরও বিচার হবে। কারণ নিরাপত্তা বাহিনী এখন অনেক শক্তিশালী। তারা যেকোন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে প্রস্তুত।

তাই যেকোন মূল্যে পাহাড়ের শান্তি বিনষ্ট করতে দেওয়া হবে না। পাহাড় বাসিন্দাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা বাহিনী এ অঞ্চলে নিয়োগ করা হবে।

বৃহস্পতিবার বিকালে রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট সম্মেলন কক্ষে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রাণালয়ের আয়োজনে তিন পার্বত্য জেলা রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দবানের বিশেষ আইন শৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রাণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এর সভাপতিত্বে এতে উপস্থিত ছিলেন  সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য বাসন্তি চাকমা, পার্বত্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মেসবাহুল ইসলাম, মহাপুলিশ পরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ এর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলাম, র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ানের (র‌্যাব) মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, চট্টগ্রাম এরিয়া কমান্ডার সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল এস এম মতিউর রহমান প্রমুখ।

এ সময় সন্ত্রাসী নেতাদের উদ্দেশ্য করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, যারা অস্ত্রবাজদের অস্ত্রের মহড়া দিয়ে এ পার্বত্যাঞ্চল অচল করতে চায়, তাদের সে স্বপ্ন কোন দিন পূরণ হবে না।

আমরা তা করতে দিব না। তিনি বলেন, আমরা চুপ করে আছি বলে এটা মনে করবে না, সন্ত্রাসীদের মোকাবেলা করতে আমাদের শক্তি নেই। আমরা এখনো ধৈর্য ধরে আছি। ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে গেলে কেউ রেহাই পাবে না।

মন্ত্রী বলেন, আমি আসার পর পাহাড় বাসিন্দাদের সাখে কথা বলেছি। তারা সবাই একটি কথা বলেছেন। তারা কেউ সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, খুন, গুম, রক্তপাত চায় না। তারা শান্তিতে বসবাস করতে চায়। তাদের শান্তি প্রতিষ্ঠা করার জন্য এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সাথে আলোচনা করে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রাণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং বলেন, শান্তির চুক্তির কোন ধারাতে খুনখারাবি লিখা নেই। তাহালে কেন এতো খুনখারাবি রক্তপাত। এ সরকার জনবান্ধব সরকার। সাধারণ মানুষের জানমাল রক্ষা করতে সরকারের যা যা করার দরকার তাই করবে। সরকার সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15