বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ০৩:২০ অপরাহ্ন

ছোট ইয়াবার বড় কারবার

ডেস্ক রিপোর্ট :
  • আপডেট টাইম :: শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৮৯
ফাইল ছবি

দেশব্যাপী চালানো বিশেষ অভিযানে আতঙ্ক থাকলেও বন্ধ করা যাচ্ছে না ইয়াবাকারবার। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নিয়মিত অভিযানের মধ্যেও চলছে এ মরণনেশার পাচার, বিকিকিনি ও সেবন। মিয়ানমারে উৎপাদিত এ বড়ির বড় বড় চালান কক্সবাজার ও বান্দরবানের সীমান্ত পেরিয়ে প্রতিনিয়ত আসছে বাংলাদেশে। এসব চালান আনা-নেওয়ায় ব্যবহৃত হচ্ছে নতুন নতুন রুট। একটি রুট বন্ধ হলে, চালু করা হচ্ছে আরেকটি রুট। এভাবে দুর্গম সীমান্তে অন্তত ২০টি নতুন রুটে ইয়াবা আসছে বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে। এমনকি মিয়ানমার থেকে ভারত হয়ে কুমিল্লা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সীমান্ত দিয়েও ইয়াবা ঢুকছে বলে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) কাছে তথ্য রয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, মিয়ানমার থেকে সবচেয়ে বেশি ইয়াবার চালান আনছে রোহিঙ্গারা। পরে হাতবদল হয়ে ছড়িয়ে পড়ছে সারাদেশে। ২০১৮ সালের ৪ মে মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান শুরুর পর থেকে গত ২১ মাসে সারাদেশে ৪৮৯ মাদককারবারি নিহত হওয়ার পরও এ ইয়াবা বড়ির পাচার ঠেকানো যাচ্ছে না। এর মধ্যে শুধু কক্সবাজার জেলাতেই ২০৮ মাদককারবারি নিহত হয়েছেন।

২০১৮ সালের ৪ মে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকা ধরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ইয়াবার বিরুদ্ধে সাঁড়াশি অভিযান শুরু করে। টানা অভিযানের মুখে দুই দফায় কক্সবাজারের ১২৩ ইয়াবাকারবারি পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন। তাদের মধ্যে ২৩ গডফাদার রয়েছেন। ২৩ জনের মধ্যে কক্সবাজারের সাবেক সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির চার ভাই ও দুই আত্মীয়সহ ৬ জন রয়েছেন। অন্য ৫০ জনের মধ্যে ৯ জন ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন। বাকি ৪০ গডফাদার এখনো আত্মসমর্পণ করেননি। তারা রয়েছেন ধরাছোঁয়ার বাইরে।

মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জামাল উদ্দীন আহমেদ আমাদের সময়কে বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতার কারণে এখন মাদক এলেই ধরা পড়ছে। তাই মাদক জব্দ হওয়ার বিষয়টিকে ইতিবাচকভাবে দেখতে হবে। এখন মাদক অনেক কম আসছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতার মুখে মাদকব্যবসায়ীরা রুট পরিবর্তন করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, মাদকব্যবসায়ীরা বিভিন্ন রুট পরিবর্তন করছে এটা হচ্ছে বাস্তবতা। এ কারণে আমাদের তৎপরতাও সেভাবেই পরিবর্তন করা হচ্ছে। এ বিষয়ে আমরা সব আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নিয়ে সমন্বিতভাবে কাজ করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 UkhiyaSangbad
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbaukhiyasa15